লিখুন
ফলো

আমাদের নতুন খবর গুলো পেতে এখনি সাইন আপ করুন

মঙ্গল গ্রহে পানির খোঁজ

কিভাবে মঙ্গল গ্রহে থেকে কোটি কোটি বছর আগে পানি অপসারণ হয়েছে এটা একটা দীর্ঘদিনের রহস্য। বিজ্ঞানীরা এখন মনে করেন বেশিরভাগ পানিই গ্রহের বাইরের স্তরে আটকে গেছে। আর মঙ্গল গ্রহে সেই পানি পাথরের মধ্যে সমন্বিত খনিজ আকারে বিদ্যমান রয়েছে। ৫২তম চন্দ্র ও গ্রহ বিজ্ঞান সম্মেলনে এই ফলাফল নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে এবং সায়েন্স জার্নালে তা প্রকাশিত হয়েছে। এই গবেষণায় মঙ্গল-কক্ষপথ মহাকাশযানরোভার এবং উল্কাপিণ্ড থেকে সংগৃহীত পরিমাপ ব্যবহার করা হয়েছে। এরপর গবেষকরা একটি কম্পিউটার সিমুলেশন তৈরি করেন কিভাবে সময়ের সাথে সাথে এই গ্রহ থেকে পানি হারিয়ে যায়।



চার বিলিয়ন বছর আগেমঙ্গল ছিল উষ্ণ এবং আর্দ্র। একটি পুরু বায়ুমণ্ডল ছিল। লাল গ্রহ তার সমগ্র পৃষ্ঠকে ১০০ মিটার থেকে এক কিলোমিটার গভীরে পরিমাপের একটি স্তরে আবৃত করার জন্য যথেষ্ট পানি ধরে রাখতে পারত। প্রায় এক বিলিয়ন বছর পরেমঙ্গল গ্রহ আজ শীতলনির্জন গ্রহে রূপান্তরিত হয়েছে।

গ্রহ বিজ্ঞানী ডঃ পিটার গ্রিন্ডরোড বলেন “আমরা অনেক দিন ধরেই জানি যে মঙ্গল গ্রহ শুরুতে অনেক আর্দ্র ছিল। লন্ডনের প্রাকৃতিক ইতিহাস জাদুঘর থেকে ডঃ গ্রিন্ডরোড বিবিসি নিউজকে বলেন: “আমরা ইতোমধ্যে মঙ্গলের বায়ুমণ্ডলের গবেষণা থেকে জানি যে কিছু পানি মহাশূন্যে হারিয়ে গেছেএবং ভূপৃষ্ঠের ঠিক নিচে বরফ জমা হয়েছে।

মহাশূন্যে বায়ুমণ্ডল

পৃথিবীর একটি চৌম্বক ঢাল বা চৌম্বক মণ্ডল আছে, যা বায়ুমণ্ডলকে ধরে রাখে। কিন্তু মঙ্গলের চৌম্বক ঢাল দুর্বল এবং পানির উপাদান গ্রহ থেকে ধরে রাখতে সক্ষম নয়। কিন্তু যে হারে হাইড্রোজেন থেকে অপসারণ হয়েছে তা পুরোপুরি গুজব হতে পারে না।

পাসাডেনার ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (ক্যালটেক) এর সহ-লেখক ইভা লিঙ্গহান শেলার বলেন, ধারণা করা হয় যে হাইড্রোজেনের বর্তমান ক্ষতির হার অতীতে একই ছিল। বেশিরভাগ পানি নিশ্চয়ই অন্য কোথাও চলে গেছে।



কম্পিউটার মডেলিং কাজের ফলাফল দেখায় যে মঙ্গলের প্রাথমিক পানির ৩০% থেকে ৯৯% খনিজ পদার্থের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

ক্যালটেক-এর সহ-লেখক অধ্যাপক বেথানি এহলম্যান ব্যাখ্যা করেছেন, “মঙ্গল গ্রহের মিশন থেকে তথ্য অধ্যয়ন করে এটা পরিষ্কার হয়ে যায় যে পানি পরিবর্তনের প্রমাণ খুঁজে বের করা এটা সাধারণ বিষয়”।

বেশিরভাগ পানি প্রায় ৪.১ থেকে ৩.৭ বিলিয়ন বছর আগে হারিয়ে গিয়েছিল- মঙ্গলের ইতিহাসের বিস্তৃতির সময় যা নোয়াচিয়ান যুগ নামে পরিচিত।

আরো পড়ুনঃ

মহাকাশ জয়ের প্রতিযোগিতায় পরাশক্তিগুলো

কেমন হবে আগামীর মহাকাশ?

মহাকাশ জয়ের প্রতিযোগিতায় পরাশক্তিগুলো

মঙ্গলের জলবায়ু পরিবর্তন

নাসার মঙ্গল অনুসন্ধান কর্মসূচির প্রধান বিজ্ঞানী ড. মাইকেল মেয়ার বলেন: “মঙ্গল গ্রহ অনুসন্ধানের মূল ভূমিকা হচ্ছে পানি, যেহেতু এটি পৃথিবীর ভূতত্ত্ব, জলবায়ু এবং জীবনে একটি কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে। এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ গবেষণা যে মঙ্গল গ্রহে কতটা পানি ছিল, কিভাবে এটি হারিয়ে গেছে এবং এখন কোথায় জমা রয়েছে।”



ডঃ গ্রিন্ডরোড এর সাথে যোগ করেছেন: “এই নতুন গবেষণা আমাদের বলছে যে এই পানির অনেকটা পরিমান সম্ভবত মঙ্গল গ্রহে পাথরে আটকে থাকতে পারে। হাইড্রেশনের এই প্রক্রিয়া এক কিলোমিটার গভীরে একটি বৈশ্বিক স্তরের সমান পরিমাণ পর্যন্ত বিপুল পরিমাণ পানি সংরক্ষণ করতে সক্ষম। “যদিও বেশিরভাগ তরল পানি সম্ভবত মঙ্গল গঠনের প্রায় দেড় বিলিয়ন বছর পর অদৃশ্য হয়ে গেছে। 

“মঙ্গল গ্রহের প্রাথমিক জলবায়ু গ্রহ বিজ্ঞানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, এবং এই গবেষণায় মঙ্গল গ্রহের পানি হারানোর কারন এবং প্রক্রিয়া আমাদের জানতে সাহায্য করবে।”

This is a Bangla Article. Here, everything is written about water in Mars

Featured image taken from Google

All links are hyperlinked.

Total
5
Shares
Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

 
Previous Article
এরদোয়ান

এরদোয়ান: রুটি বিক্রেতা থেকে মুসলিম বিশ্বের নেতা

Next Article

ভেটেরান (২০১৫) : গতানুগতিক অ্যাকশন/ক্রাইম ধারার বাইরে গিয়ে যে সিনেমা সামাজিক বৈষম্য, ধনীদের স্বেচ্ছাচারিতা আর দুর্নীতিকে তুলে ধরে

 
Related Posts
আরও পড়ুন

কোভিড ভ্যাকসিনে বিশ্বাস

ফিজার এবং বায়োনটেক একটি সিওভিড-১৯ ভ্যাক্সিনের নাম ঘোষণা করেছে যা এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯০ শতাংশের বেশি কার্যকরী বলে প্রমাণিত হয়েছে। গবেষণা শুরু হওয়ার পর থেকে এটি কোনও সম্ভাব্য ভ্যাকসিন বিতরণ…
আরও পড়ুন

লায়লা খালিদ: ইসরায়েলের বিমান ছিনতাই করেছিল যে ফিলিস্তিনি তরুণী

দিনটি ছিল ১৯৬৯ সালের ২৯ আগস্ট। রোম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানের জন্য অপেক্ষমান অন্য যাত্রীদের সঙ্গে বসে আছে এক…
আরও পড়ুন

কেমন হবে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা ব্যবস্থা?

১৯৮৬ সালের ২৬ এপ্রিল স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ পারমাণবিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। যাতে তাৎক্ষণিকভাবে নিহত হয় ৩১ জন এবং তেজস্ক্রিয়তা…
আরও পড়ুন

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সবচেয়ে জনপ্রিয় দুটি ভ্যাক্সসিন ফাইজার এবং মোডের্না কোম্পানির ইতিহাস

সম্প্রতি করোনা ভাইরাস থাবা থেকে পুরো বিশ্ববাসী বেশ কিছুটা হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে। কোভিড-১৯ এর ভয়াল থাবায় হাতের মুঠোয়…

আমাদের নিউজলেটার জন্য সাইন আপ করুন

আমাদের নতুন খবর গুলো পেতে এখনি সাইন আপ করুন

Sign Up for Our Newsletter